ছা’ত্রীর গো’পন ভিডিও নিয়ে পাত্রপক্ষের বাড়িতে হাজির গৃহশিক্ষক

নড়াইলের লোহাগড়ায় ছা’ত্রীর স’ঙ্গে অ;ন্ত;র;ঙ্গ মু;হূ;র্তে;র ভি;ডিও ;ধারণ করে বি;য়ে ভে;ঙে দে;য়ার অ;ভি;যো;গে গৃহ;শিক্ষ;ককে গ্রে;ফ;তার করে;ছে পু;লিশ।

সোমবার বিকেলে অ’ভিযু’ক্ত আশরাফুজ্জামান রানা নড়াইলের সিনিয়র জু’ডিশিয়াল ম্যা’জিস্ট্রেট আমাতুল মোর্শেদার আ’দালতে ১৬৪ ধারায় স্বী’কারোক্তিমূ’লক জবানব’ন্দি প্রদান করেন।

এ;জাহার ও পরি;বার সূত্রে জা’না গেছে, লোহাগড়া পৌরসভা’র আশরাফুজ্জামান রানা ২০১৯ সালে একই এলাকার এক শিক্ষার্থীকে প্রাইভেট পড়াতেন। এ সময় বি;ভি;ন্ন প্র;লো’ভন দি;য়ে ও;ই ছা;ত্রী;কে তি;নি ধ;র্ষ;ণ করেন এবং ধ’র্ষণের চিত্র মোবাইল ফোনে ধারণ করে রাখেন।

এ;দি;কে পারি;বারিক;ভাবে গত রো;ববা;র (২১ ;মা’র্চ) ও;ই শি;ক্ষা;র্থীর বি;য়ে;র দি;ন ধা;র্য ক;রা হয়। কিন্তু বি;য়ের আ;গের দিন গ;ভীর রা;তে গৃহশিক্ষক আশ;রাফুজ্জা;মান রা;না পাত্র;প;ক্ষের বাড়ি;তে উপ;স্থি;ত হ;য়ে ধ;র্ষ;ণে;র ধার;ণকৃত ভি;ডি;ও দে;খা;লে তা;কে আট;কে রে;খে লো;হাগড়া থা;না পু;লিশে খ;বর দেয় পাত্রপক্ষ।

খ;বর পে;য়ে রা;তেই লোহাগ;ড়া থা;না পু;লিশ আশরা;ফুজ্জা;মান রা;নাকে আ;ট’ক ক;রে থা’নায় নিয়ে আসে। এ ঘ’টনায় শিক্ষার্থীর বাবা বা’দী হয়ে সোমবার স;কালে রানাকে আ’সামি করে লো;হাগ;ড়া থা;নায় মা;মলা দায়ে;র করেন।

লো;হাগড়া ;থা’নার এ;সআই ও মাম;লার ত;দন্তকা;রী ক;র্মক’র্তা সা;ইফুল ইস;লাম জা;নান, ভি’কটিমের ডা;;ক্তারি প;রীক্ষা নড়া;ইল স;দর হাসপা;তা’লে সম্প;ন্ন হ;য়েছে। এক;ই আ’দালতে ভি’কটিম ২২ ধারা;য় জা;বান;ব;ন্দি প্রদা;ন করে;ছেন।

বিশেষ মলমে শা’রীরি’ক সু’খ বাড়াতে গিয়ে হা’সপা’তালে দ’ম্প’তি

স্ত্রী’র সেই আবেদনে সাড়া দিয়েই বড় ধ’রনের বি’পদে প’ড়েন ওই স্বা’মী। দা’ম্প’ত্য জীবনে সু’খ ফিরিয়ে আনতে স্বা’মীর কাছে স্ত্রী’র ‘বিশেষ আবেদন’।

নিজে’র স্ত্রী’র এমন আ’বেদনে স্বা’মীও সাড়া দেন। এখানে ঘ’টে যায় বি’পত্তি। তাহলে ঘ’টনাটি খু’লে বলা যাক- স্ত্রী’র দেয়া ‘বিশেষ মলমে’ বাড়বে শা’রীরিক সু’খ। স্ত্রী যদিও শেষ পর্যন্ত বড় ধ’রনের বি’পদের হাত থেকে র’ক্ষা পেয়েছেন তিনি। ভারতের মহারাষ্ট্রে এই ঘ’টনাটি ঘ’টেছে।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী জা’না যায়,স’ম্প্রতি ভারতের মুম্বাই মহারাষ্ট্রের এক যু’বক তার স্ত্রী’র বি’রুদ্ধে চাঞ্চল্যকর অ’ভিযোগ এনেছেন। ওই যুবক ভারতীয় সে’নাবা’হিনীতে কাজ করেন। কিছুদিন আগে ছুটির সময়ে তিনি নি’জে’র বাড়িতে আসেন।

আর সেই সময়ে ঘ’টে এই বিপত্তি। ভু’ক্তভোগী ওই স্বা’মীর অ’ভিযোগ, তার স্ত্রী’ বিশেষ একটি মলম দেন তাকে। ওই মলমটি গো”প’না’ঙ্গে দিলেই শা’রী’রিক উ’ত্তে’জনা বেড়ে যায় বলে তাকে (স্বা’মীকে) জা’নায় তার স্ত্রী’। ওই যুবক স্ত্রী’র কথামতো মলমটি পু*রু*ষা*ঙ্গে মেখে নেন।

কিন্তু, এরপরই প্রচ’ণ্ড ব্য’থা শুরু হয় ওই যুবকের গো”প’না’ঙ্গে।শেষ পর্যন্ত ব্য’থা সর্হ্য ক’রতে না পেরে চিকি’ৎসকের কাছে যান তিনি। চিকিৎ’সার পরে ওই যু’বক এখন মো’টামুটি সু’স্থ রয়েছেন বলে জা’না যায়। ওই স্বা’মীর অ’ভি’যোগে আরও বলেন, ওই মলমের মধ্যে বি’ষ মাখানো ছিল।

প্রে’মিকের স’ঙ্গে মিলে তাকে হ*ত্যার প’রিকল্পনা করেছিল তার স্ত্রী’।এই অ’ভিযোগের ভিত্তিতে ওই না’রীকে জি’জ্ঞাসাবাদ করছে পু’লি’শ। এ ঘ’টনার পর থেকে প’লাতক রয়েছে ওই গৃহবধূর প্রে’মিক। ইতোমধ্যে তার খোঁ’জে অ’ভি’যান চা’লিয়ে যাচ্ছে পু’লি’শ।

About tanvir

Check Also

যেভাবে ভেস্তে গেল বিএনপির উদ্যোগ!

২০ দলীয় জোট থেকে জামায়াতকে দূরে ঠেলতে বিএনপির একটি অংশ অনেকদূর অগ্রসর হলেই দলের অন্য …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *