মুন্সিগঞ্জে ওসিকে পি’টিয়ে জ’খম, মোটরসাইকেল-বাড়িঘরে আ’গুন

মুন্সীগঞ্জে হরতাল সমর্থকদের স’ঙ্গে পু’লিশ ও আওয়ামী লীগের সং’ঘর্ষে ওসি, মুধুপুর পীরসহ প্রায় ২০ জন আ’হত হয়েছেন। পরে সিরাজদিখান থানার ওসি জালালউদ্দিন ও হেফাজত ইসলামের কেন্দ্রীয় আমির ও কওমী মাদ্রাসা আঞ্চলিক বোর্ডের সভাপতি মাওলানা আব্দুল হামিদ মুধুপুর পীর সাহেবকে (৬৪) গু’রুতর অবস্থায় ঢাকা মোডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রোববার (২৮ মার্চ) বেলা ১১টার দিকে এ ঘ’টনা ঘটে। পরিস্থিতি নি’য়ন্ত্রণে আনতে পু’লিশ টিয়াল শেল নি’ক্ষেপ করেছে।

এ ঘ’টনায় আরও ছয়জন পু’লিশ আ’হত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন সিরাজদিখান থানার ওসি (ত’দন্ত) মো.কামরুজ্জান জানান। এছাড়া হেফাজত ইসলাম ও আওয়ামী লীগের স্থানীয় আরও কয়েকজন নেতা-কর্মী আ’হত হয়েছেন। তাদের ঢাকা ও স্থানীয় বিভিন্ন হাসপতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

পু’লিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সিরাজদিখান উপজে’লার নিমতলা এলাকায় মধুপুর পীর সাহেবের নেতৃত্বে বিদ্যুতের খুঁটি ফে’লে ও টায়ার জ্বা’লিয়ে মহাসড়ক অ’বরোধ করে রাখে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা। তারা মোটরসাইকেলে আ’গুন ধরিয়ে দেয়। পরে, পু’লিশ-ছাত্রলীগ তাদের ছত্র ভঙ্গ করতে গেলে সং’ঘর্ষ বেঁ’ধে যায়।

এদিকে, সিরাজদিখান উপজে’লার রাজানগরে ইউপি আওয়ামী লীগ সভাপতি আলমগীর ও যুবলীগ নেতা মো. বিপ্লবের বাড়িতে হা’মলা চা’লিয়ে আ’গুন ধরিয়ে দিয়েছে হেফাজতে ইসলামের কর্মীরা। এতে আরও পাঁচজন আ’হত হয়ছে।

মুন্সীগঞ্জের জে’লা প্রশাসক মো. মনিরুজ্জামান তালুকদার জানিয়েছেন, পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সর্বোচ্চ চেষ্টা চা’লিয়ে যাচ্ছে। জান-মাল রক্ষায় অতিরিক্ত পু’লিশ মোতায়েন ছাড়াও বিজিবি তলব করা হয়েছে।

হেফাজতের কর্মসূচিতে জামায়াত-শিবির ঢুকে গেছে: আউয়াল

কওমি মাদরাসা ভিত্তিক সংগঠন হেফাজতে ইসলামের কর্মসূচিতে মুক্তিযু’দ্ধের বি’রোধী ও পরাজিত শ’ক্তি জামায়াত ও দলটির ছাত্র সংগঠন ছাত্র শিবিরের উ’গ্রপন্থীরা ঢুকে পড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন সাবেক সং’সদ সদস্য ও ইসলামী গণতান্ত্রিক পার্টির চেয়ারম্যান এম এ আউয়াল।

তিনি বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঢাকা সফরকে কেন্দ্র করে সম্পূর্ণ পরিকল্পিতভাবে ঢাকা, চট্টগ্রাম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, ফরিদপুরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ও’পর হা’মলা চা’লানো হয়েছে।

থানা, রেলস্টেশনে চা’লানো হয়েছে জ’ঙ্গিবা’দী না’শকতা। বিনাশ করা হয়েছে সাধারণ জনগণের সম্পদ। রোববার হরতালেও দেশের বিভিন্ন স্থানে রেলস্টেশন, সংস্কৃতিকেন্দ্রসহ মানুষের সম্পদ ন’ষ্ট করেছে হেফাজত। রবিবার (২৮ মার্চ) দুপুরে এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘এরা একাত্তর সালেও দেশের স্বাধীনতা মেনে নেয়নি। স্বাধীনতার ৫০ বছর পরে এসেও এদের অবস্থানে পরিবর্তন আসেনি। এদের বি’রুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া জরুরি।’

তিনি আরও বলেন, ‘কওমি মাদরাসার সাধারণ ছাত্র-শিক্ষকদের ব্যবহার করে হরকতপন্থী জ’ঙ্গিবা’দী-উ’গ্রপন্থীরা এসব হা’মলা করছে। হেফাজতের ব্যানারে জিহাদি স্লোগান যারা দিচ্ছে, তারাই গণমানুষের সম্পদ বিন’ষ্টের উ’গ্রখেলায় মেতে উঠেছে।

একাত্তরের পরাজিত শ’ক্তি জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরাও এই না’শকতার স’ঙ্গে জ’ড়িত। স’রকার নিরপেক্ষভাবে ত’দন্ত করলেই এদের মুখোশ বেরিয়ে আসবে।’

‘সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ফেক লাইভ দেখিয়ে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টির পেছনেও জামায়াত-শিবিরের উ’গ্রপন্থীরা যুক্ত’ বলে অভিযোগ করেন এম এ আউয়াল।

তিনি বলেন, ‘গত কয়েকদিনে ফেসবুকে অসংখ্য আইডি থেকে ফেক লাইভ করে গুজব ছড়ানোর অ’পচেষ্টা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট ম’ন্ত্রণালয়কে এ ব্যাপারে সুষ্ঠু ত’দন্ত করতে হবে।’

হাটহাজারী ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর স’ঙ্গে সং’ঘর্ষে নি’হতদের বি’ষয়ে স’রকারের সুস্পষ্ট অবস্থান ও ত’দন্তের দাবি জানান এম এ আউয়াল। তিনি বলেন, ‘অস্বাভাবিক কোনো মৃ’ত্যুই কারও কাছে কাম্য হতে পারে না। কিন্তু এসব মৃ’ত্যুর পেছনের কারণ যথাযথ অনুসন্ধান করতে বিভাগীয় ত’দন্ত করা জরুরি।’

About tanvir

Check Also

ভো’ট চা’ইতে গিয়ে গ;ণ’ধ;র্ষ;ণে;র শি’কার ম’হিলা প্রা’র্থী

প’টুয়াখালীর মি’র্জাগঞ্জে সংরক্ষিত এক না’রী কা’উ’ন্সিলর প্রার্থীকে (৪৫) গ;ণধ;র্ষ;ণের অ;ভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার (১৬ জানুয়ারি) …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *