দুই দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি

গত ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসের দিনে দেশের বিভিন্ন স্থানে মানুষ হ’ত্যার প্র’তিবাদে আগামী সোম ও মঙ্গলবার দুইদিন বি’ক্ষো’ভ সমাবেশ-মিছিলের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি। তবে হেফাজতে ইসলামের রবিবারের সকাল-সন্ধ্যা হরতালে আনুষ্ঠানিক কোনো সমর্থন জানায়নি দলটি। শনিবার (২৭ মার্চ) বিকালে স্থায়ী কমিটির ভার্চুয়াল বৈঠকের পর এক সংবাদ সম্মেলনে দলের মহাস’চিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, স্বাধীনতার দিবসে শান্তিপূর্ণ বি’ক্ষো’ভে মানুষ হ’ত্যাকাণ্ডের প্র’তিবাদ আগামী ২৯ মার্চ ঢাকাসহ সকল মহানগরীতে বি’ক্ষো’ভ সমাবেশ ও মিছিল এবং ৩০ মার্চ জে’লা সদরে বি’ক্ষো’ভ মিছিল অথবা সমাবেশের কর্মসূচি আমরা ঘোষণা করবো।

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ আগামীকাল রোববার সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ডাক দিয়েছে- এই কর্মসূচির প্রতি বিএনপির সমর্থন আছে কিনা জানতে চাইলে বিএনপি মহাস’চিব বলেন, আমরা যেটা প্র’তিবাদ করছি,

বি’ক্ষো’ভ মিছিল করছি সেটা হচ্ছে স্বাধীনতা দিবসের দিনে মানুষকে হ’ত্যা করার প্র’তিবাদে। খুব স্পেসিফিক বলছি যে, প্রত্যেকটা সংগঠনের, প্রত্যেক নাগরিকের সাংবিধানিক অধিকার আছে প্র’তিবাদ করা বা তার মত প্রকাশ করবার। সেই মত প্রকাশ করার ক্ষেত্রে যখন গু’লি করা হয়েছে আমরা সেইটার প্র’তিবাদ করছি, আমরা এর বি’রুদ্ধে কর্মসূচি ঘোষণা করছি।

‘‘আমাদের একটি জিনিস মনে রাখতে হবে যে, প্রত্যেকটি নাগরিকের ন্যায় স’ঙ্গত সাংবিধানিক অধিকার রয়েছে ভিন্নমত পোষণ করবার। সেখানে তারা যদি কোনো কর্মসূচি দেয় বা হরতাল আহবান করে সেটা যৌক্তিক তো বটেই।

তবে একই স’ঙ্গে স’রকার যদি তাকে প্রতিহত করবার বা বন্ধ করবার অগণতান্ত্রিক অথবা হঠকারী হু’মকি দেয়- সেটা হবে একেবারেই হঠকারী ব্যবস্থা। স’রকারের কাছে থেকে এই ধরনের ব্যবস্থা কেউ আশা করতে পারে না। যদি এখানে কোনো অবাঞ্চিত পরিস্থিতির সৃষ্টি হয় তার দায়-দায়িত্ব স’রকারকেই বহন করতে হবে।”

মির্জা ফখরুল বলেন, গতকাল শান্তিপূর্ণ বি’ক্ষো’ভে পু’লিশে নির্বিচার লা’ঠিচার্জ, গু’লিবর্ষণ এবং একই স’ঙ্গে আওয়ামী স’ন্ত্রাসী বাহিনীর আক্রমনের প্র’তিবাদে যে র’ক্ত ঝরেছে বায়তুল মোকাররম, চট্টগ্রাম ও ব্রাক্ষণবাড়ীয়ায়-এটা নিস’ন্দে’হে ৫০ বছরের বাংলাদেশের ইতিহাসে জঘন্যতম একটি কলংকজনক অধ্যায়। এটা নজিরবিহীন ঘ’টনা। আমরা এই হ’ত্যাকাণ্ডের নি’ন্দা ও প্র’তিবাদ ইতিমধ্যে জানিয়েছি।

‘‘এই জঘন্য হ’ত্যাকাণ্ডের মধ্য দিয়ে স’রকার তাদের ফ্যাসিবা’দী চরিত্রের বর্হিপ্রকাশ ঘটালো। দীর্ঘদিন নিজেদের অবৈধ ক্ষ’মতাকে ধরে রাখবার জন্য হ’ত্যা, গুম, খু’ন,

নি’র্যাতনের মাধ্যমে বি’রোধী দল ও ভিন্নমতকে দ’মন করে চলছে। সকল রাষ্ট্রযন্ত্র ব্যবহার করে কর্তৃত্ববা’দী শাসন চিরস্থায়ী করতে অ’পচেষ্টা চালাচ্ছে যা প্রকারান্তরে একদলীয় শাসনব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করতে চায়।”

তিনি জানান, স্বাধীনতা দিবসের দিনে দেশে বিভিন্ন স্থানে মানুষ হ’ত্যা ও পু’লিশি হা’মলার প্র’তিবাদে আগামীকাল রোববার জাতীয়তাবা’দী যুব দল, জাতীয়তাবা’দী স্বেচ্ছাসেবক দল ও জাতীয়তাবা’দী ছাত্র দল সারাদেশে বি’ক্ষো’ভ করবে।

এই তিন সংগঠনের নেতা-কর্মীরা শনিবারও বি’ক্ষো’ভ করতে গিয়ে বিভিন্ন স্থানে পু’লিশি হা’মলা ও গ্রে’প্তারের মুখে পড়েছে। বিভিন্ন স্থানে নেতা-কর্মীদের গ্রে’প্তারে নি’ন্দা জানিয়ে অবিলম্বে তাদের মুক্তি দাবি করেন।

হবিগঞ্জে পু’লিশি হা’মলায় গু’লিবিদ্ধ জহিরুল হক শরীফসহ বিভিন্ন স্থানে আ’হত হওয়ার ঘ’টনার নি’ন্দা জানিয়েছেন বিএনপি মহাস’চিব।

এর আগে, বিকাল তিনটায় দলের ভারপ্রা’প্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে স্থায়ী কমিটির ভার্চুয়াল বৈঠক হয়। বৈঠকে দলের মহাস’চিব ছাড়া স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন,

জমির উদ্দিন স’রকার, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু উপস্থিত ছিলেন।

About admin

Check Also

যেভাবে ভেস্তে গেল বিএনপির উদ্যোগ!

২০ দলীয় জোট থেকে জামায়াতকে দূরে ঠেলতে বিএনপির একটি অংশ অনেকদূর অগ্রসর হলেই দলের অন্য …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *