কুমিল্লার মে’য়েকে ছেলের বৌ করা নিয়ে যা বললেন মৌসুমী

বাংলাদেশের সিনেমায় এক সময়ের জনপ্রিয় নাম ছিল মৌসুমী। সিনেমা করেছেন অনেক। পেয়েছেন আকাশ চুম্বী জনপ্রিয়তাও। তবে সম্প্রতি এসেছেন নতুন এক কারনে আলোচনায়।

মৌসুমী-ওম’র সানি বিয়ে করেছিলেন ১৯৯৫ সালের ৪ মা’র্চ। কাউকে না জানিয়ে হুট করে বিয়ে করলেও পাঁচ মাস পর ২ আগস্ট আয়োজন করেছিলেন বিবাহোত্তর সংবর্ধ’না অনুষ্ঠানের।

তাঁদের বিয়ের ২৫ বছর পেরিয়েছে।
বিবাহবার্ষিকী’ এলে আজও তাঁদের মনে হয়, এই তো সেদিন বিয়ে করলাম। কবে, কখন এতটা সময় পার হয়ে গেল! এক মে’য়ে ও এক ছে’লের সু’খের সংসার তাদের। প’রস্পরকে ভালোবেসে। সু’খের সংসার নিয়ে এই শিল্পী দম্পতি বসবাস করেন রাজধানীর গুলশানে।

আর সেই সংসারে এবার যোগ হচ্ছে নতুন অ’তিথি। সপ্তাহ দুয়েক পর মৌসুমী–সানির ছে’লে ফারদীনের বিয়ে। ছে’লের জন্য কানাডাপ্রবাসী এক অনিন্দ্য রূপবতী তরুণীকে পছন্দ করেছেন এই তারকা দম্পতি। তাদের ছে’লের হবু বউয়ের নাম আয়েশা।

ছে’লের বিয়ে প্রস’ঙ্গে মৌসুমী জানান, আগামী ৫ এপ্রিল ঢাকার একটি পাঁচতারা হোটেলে বর–কনের গায়েহলুদ। ৯ এপ্রিল আরেক পাঁচতারা হোটেলে বিবাহোত্তর সংবর্ধ’না অনুষ্ঠান। ছে’লের বিয়ে নিয়ে ভীষণ ব্যস্ত সময় পার করছেন মৌসুমী–ওম’র সানি।

তাঁদের ছে’লে ফারদীন কয়েক বছর আগে থেকে নাট’ক–সিনেমা পরিচালনা শুরু করেছিলেন। তিনি ’ডেস্টিনেশন’ নামে একটি টেলিছবি নির্মাণ করেছেন। তা ছাড়া বেশ কয়েকটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রও নির্মাণ করেন তিনি। পাশাপাশি উদ্যোক্তা হিসেবে এগিয়ে যাওয়ার চে’ষ্টা করছেন।

এদিকে মৌসুমী জানান, গায়েহলুদ ও বিবাহোত্তর সংবর্ধ’নার মাঝামাঝি সময়ে ফারদীন ও আয়েশার আকদ সম্পন্ন হবে। ছে’লে প্রস’ঙ্গে মৌসুমী বলেন, ’সময়ের স’ঙ্গে নিজেকে বদলে নিতে পারাটা সবচেয়ে বড় স্মা’র্টনেস। আমাদের ছে’লে বড় হচ্ছে।

তাঁর জীবন গুছিয়ে দেওয়াটা আমাদের দায়িত্ব। সে নিজের মতো করে নানা রকম কাজ করছে। তা ছাড়া জীবনটা গুছিয়ে দিতে একদিন না একদিন তাঁকে বিয়েও করাতে হবে। ছে’লের ভালো লাগার মতো একটা মে’য়েকে বউ হিসেবে পেলে তো মা হিসেবে নিজেরও ভালো লাগবে।

মে’য়েটা শুধু আমাদের স’ন্তানের নয়, আমাদেরও দারুণ পছন্দ হয়েছে। ওরা দুজন যেন ভালো থাকে, মা–বাবা হিসেবে আমাদের সেই চেষ্টাই থাকবে।’ মৌসুমীর ছে’লের বৌ জ’ন্মসূত্রে কুমিল্লার। তবে মা–বাবার স’ঙ্গে কানাডায় থাকেন।

তার পড়াশোনা ও বেড়ে ওঠা সেখানেই। মাস কয়েক আগে ফারদীনের স’ঙ্গে আয়েশার পরিচয় হয়। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে তৈরি হয় বন্ধুত্ব, এরপর ভালো লাগা। সে কথা দুই পরিবারের স’ঙ্গে ভাগাভাগি করেন দুজন। এরপর পারিবারিক আলোচনার ভিত্তিতে বিয়ের দিনক্ষণ ঠিক করা হয়।

এ দিকে ছেলের বিয়ে নিয়ে এখন সব থেকে বেশি সময় পাড় করছেন মৌসুমী ওমর সানি দম্পতি। ছেলের বিয়েতে আয়োজনের কোন ধরনের কমতি রাখতে চান না তিনি। আর এই কারনে সব ধরনের আয়োজন করতেই এখন ব্যস্ত সময় পাড় করছেন তারা। খুব শিঘ্রই যাকজমক করে হবে তার ছেলের বিয়ে।

About admin

Check Also

যেভাবে ভেস্তে গেল বিএনপির উদ্যোগ!

২০ দলীয় জোট থেকে জামায়াতকে দূরে ঠেলতে বিএনপির একটি অংশ অনেকদূর অগ্রসর হলেই দলের অন্য …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *