মৌলবা’দীদের কীভাবে নি’য়ন্ত্রণে রাখতে হয় সেটি জানেন শেখ হাসিনা

বঙ্গবন্ধুর জ’ন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে দশ দিনব্যাপী ‘মুজিব চিরন্তন’ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে আগামী ২৬-২৭ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ঢাকা সফর করবেন।

মোদির এই সফর নিয়ে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে প্রতি’বাদ, বি’ক্ষো’ভ ও আন্দোলন করা হচ্ছে। শুক্রবার (১৯ মার্চ) বাদ জুমা বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদ থেকে দেশের সমমনা ইসলামী দলগুলো মোদির সফরের বি’রোধিতা করে বি’ক্ষো’ভ করেছে। একইদিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বি’ক্ষো’ভ মিছিল করেছে প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠনগুলো।

এছাড়া মোদির এই সফরের বি’রোধিতা করছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীও।

শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ নিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন বলেছেন, মোদির সফর নিয়ে মৌলবা’দীদের বি’রোধিতা নিয়ে আমরা চিন্তা করছি না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানেন, কীভাবে মৌলবা’দীদের নি’য়ন্ত্রণে রাখতে হয়।

তিনি বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সফর নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী হবে। কারও প্র’তিবাদ, আন্দো’লনে স’রকার চিন্তিত নয়।মোদির সফরের বি’রোধিতা নিয়ে আমাদের দুশ্চিন্তা নেই। আমরা তাকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দেব।

ড. মোমেন আরও বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী আসছেন- এটা আমাদের জন্য আ’নন্দের। কেউ কেউ বি’রোধিতা করছেন, আমাদের দেশ গণতান্ত্রিক দেশ। এখানে নানা মতের লোক রয়েছেন। এ নিয়ে আমাদের দুশ্চিন্তার কোনো কারণ নেই।

সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী আসছেন বঙ্গবন্ধুর প্রতি সম্মান জানাতে ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর অনুষ্ঠানে যোগ দিতে। ডা. জাফরুল্লাহও তার (মোদি) সফর নিয়ে বি’রোধিতা করেছেন। মোদির এই সফর নিয়ে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা তৈরি না করতে সবার প্রতি অনুরোধ জানান প্রতিমন্ত্রী।

অ’ন্তঃসত্ত্বা ভাবির ঝু’লন্ত লা’শ দেবরের ঘরে

বগুড়ার শেরপুরের পল্লীতে দেবরের ঘরে সাবিনা বেগম (৩০) নামের অ’ন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর ঝু’লন্ত লা’শ উ’দ্ধার করেছে পু’লিশ। শনিবার সকালে ম’য়নাত’দন্তের জন্য লা’শ বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ম’র্গে পাঠায় পু’লিশ।

এদিকে ফাঁ’স লাগানোর ঘ’টনাটি ঘিরে এলাকায় র’হস্যের সৃষ্টি হয়েছে। খবর পেয়েই পু’লিশ ঘ’টনাস্থলে গিয়ে নি’হতের লা’শ উ’দ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এদিকে পু’লিশ লা’শ উ’দ্ধারের কাজে গেলে ওই গৃহবধূর শ্বশুরবাড়ির লোকজন বাড়ি থেকে পা’লিয়ে যায়।

পু’লিশ ও স্থানীয়রা জানান, প্রায় এক বছর আগে শেরপুর উপজে’লার সুঘাট ইউনিয়নের জয়নগর গ্রামের ইব্রাহীম হোসেনের ছেলে অটোরিকশাচালক শফিকুল ইসলাম শফির স’ঙ্গে সাবিনার দ্বিতীয় বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তাদের মধ্যে কারণে-অকারণে ঝ’গড়া-বি’বাদ লেগেই থাকত।

স্ত্রীর প’রকীয়া রয়েছে বলেও স’ন্দে’হ করতেন স্বা’মী শফিক। শুক্রবার দুপুরে সাবিনার স্বা’মী শফিক তার স্ত্রী’কে মা’রপিট করে। এ ঘ’টনা শফিকের বড়ভাই জহুরুল ইসলাম শুনে তাদের মধ্যে মীমাংসাও করে দেন। পরে ওই দিনই সন্ধ্যার দিকে দেবর রেজাউলের ঘরের তীরের স’ঙ্গে গ’লায় রশি লাগানো সাবিনাকে ঝু’লন্ত অবস্থায় দেখতে পাওয়া যায়।

About tanvir

Check Also

ভো’ট চা’ইতে গিয়ে গ;ণ’ধ;র্ষ;ণে;র শি’কার ম’হিলা প্রা’র্থী

প’টুয়াখালীর মি’র্জাগঞ্জে সংরক্ষিত এক না’রী কা’উ’ন্সিলর প্রার্থীকে (৪৫) গ;ণধ;র্ষ;ণের অ;ভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার (১৬ জানুয়ারি) …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *